• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১
  • ||

রাত হলেই ডিবি পরিচয়ে চাঁদাবাজি, তিনজন গ্রেফতার

প্রকাশ:  ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০১:০৩
সাভার প্রতিনিধি

দিনে ভিন্ন পেশায় কাজ করে রাতের অন্ধকারে হয়ে ওঠে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) সদস্য।সেই পরিচয়ে এক ব্যক্তির হাতে হ্যান্ডকাপ পড়িয়ে চাঁদাবাজির সময় স্থানীয়দের কাছে ধরা পড়ে পুলিশের এক কনস্টেবলসহ কথিত দুই সাংবাদিক।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) নয়ন কারকুন।

এর আগে রবিবার দিবাগত ভোর রাতে সাভারের ফুলবাড়িয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ডিবি পরিচয়ে প্রাইভেটকারে তুলে অর্থ আদায়ের সময় তাদের গ্রেফতার করা হয়। পরে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাদের আদালতে পাঠানো হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ঝিনাইদহ জেলার কোট চাঁদপুর থানা এলাকার আলোকদিয়া গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে জহিরুল ইসলাম (৪১), তার গলায় দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকার পরিচয় পত্র পাওয়া গেছে। শরীয়তপুর জেলার পালং থানার মাহমুদপুর গ্রামের মৃত খলিলুর রহমানের ছেলে এনামুল হক শামীম (৩৬),তার গলায় দৈনিক আজকের সংলাপ পত্রিকার পরিচয় পত্র পাওয়া গেছে। রাজবাড়ী জেলার পাংসা থানার পিপুল বারিয়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলাম (২৭), তিনি ব্যাংকটাউন এলাকার নিরাপত্তায় নিয়োজিত লাইন্স পুলিশের কনস্টেবল হিসেবে দায়িত্বরত।

তাদের কাছ থেকে চাঁদাবাজির আদায়কৃত নগদ টাকা, একটি প্রাইভেটকার, হ্যান্ডকাপ ও ২ টি প্রেসকার্ড উদ্ধার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

এসময় চাঁদাবাজ চক্রের সোহেল (৩০) নামে একজন পালিয়ে যায়। তার বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে তাকে সনাক্ত করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী মোঃ শাওনের দায়ের করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। তিনি ঢাকা জেলার সাভার থানার ভরারি নতুনপাড়া এলাকার তমিজ উদ্দিনের ছেলে।

এ ব্যাপারে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা পিপিএম সাংবাদিকদের জানান, রোববার দিবাগত ভোর রাতে একটি অপরাধী চক্রের তিন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। নিয়মিত মামলা রুজু করে তাদের ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে সোমবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

অপরাধ
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
close