• রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

কুলাউড়ায় ছাত্রদলের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৬

প্রকাশ:  ০৫ জুলাই ২০১৮, ১৫:৩৯
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি
প্রিন্ট

কুলাউড়ায় সরকারী ডিগ্রি কলেজ এ নবীণ বরণ অনুষ্ঠানে অবস্থান নেয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রদলের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৬ জন ছাত্রদল নেতা গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে পুলিশি হয়রানির ভয়ে কেউ সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা নেননি বলে জানিয়েছে বিশ্বস্ত সূত্র।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (৫ জুলাই) দুপুরে কুলাউড়া সরকারি ডিগ্রি কলেজে নতুন শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানিয়ে পৃথক মিছিল বের করার সিদ্ধান্ত নেয় কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন গ্রুপের নেতৃবৃন্দ ও সাবেক উপজেলা ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহব্বায়ক রেজাউল করিম ভূঁইয়া খোকন গ্রুপের নেতৃবৃন্দ।

প্রথমে ফয়েজ গ্রুপের নেতৃবৃন্দ মিছিল সম্পন্ন করে একটি সংক্ষিপ্ত সভা করে। পরবর্তীতে খোকন গ্রুপের নেতৃবৃন্দরা আলাদা মিছিল বের করলে উভয়পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করে। একপর্যায়ে উভয় পক্ষের নেতৃবৃন্দরা সংঘর্ষে জড়ায়। এসময় ফয়েজ গ্রুপের ১জন এবং খোকন গ্রুপের ৫জন ছাত্রদল কর্মী আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি শান্ত করে। এসময় ছাত্রদলের তিনজনকে আটক করা হয়।

এবিষয়ে উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সিনি. যুগ্ম আহ্বায়ক রেজাউল করিম ভূঁইয়া খোকনের সাথে যোগাযোগ করলে তাকে পাওয়া যায় নি।

এবিষয়ে উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মো. ফয়েজ উদ্দিন বলেন- ‘শোনেছি, নবীণ বরণ উপলক্ষে কলেজ ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দরা মিছিল বের করলে কলেজ ছাত্রদলের টিপু বিশৃঙ্খলা শুরু করে।

এসময় বিক্ষুব্ধ নেতকর্মীরা টিপুকে মারধর করে। তবে আমি এসে বিষয়টি মীমাংসা করে দিব।’ কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, ‘মিছিল দু’টি মুখোমুখী হলে মারামারি শুরু হয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য তিনজনকে আটক করি’।

/পি.এস

ছাত্রদল,সংঘর্ষ