• মঙ্গলবার, ১৯ জুন ২০১৮, ৫ আষাঢ় ১৪২৫
  • ||
শিরোনাম

পিস্তল ঠেকিয়ে সাংবাদিক হত্যার চেষ্টা

প্রকাশ:  ২৭ মে ২০১৮, ১৩:১৬
নোয়াখালী প্রতিনিধি
প্রিন্ট
ফাইল ছবি
নোয়াখালী শহরের টাউনহল মোড়ের ফ্ল্যাট রোডের দ্বিতীয় তলায় প্রকাশ্য দিবালোকে এক সাংবাদিকের কার্যালয়ে ঢুকে হামলা-ভাঙচুর করেছে একদল সশস্ত্র দুর্বৃত্তরা। এ সময় তাঁরা সাংবাদিক মো. হানিফকে এবং কার্যালয়ে অবস্থানকারী অন্য ব্যক্তিকেও পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করে। 

শনিবার (২৬ মে) বিকেল সোয়া চারটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক সুধারাম থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে ঘটনাস্থলে যান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ কে এম জহিরুল ইসলাম ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-ডিবি) আবুল খায়ের।

সাংবাদিক মো. হানিফ দৈনিক যুগান্তরের নোয়াখালীর স্টাফ রিপোর্টার। তিনি বলেন, বিকেল সোয়া চারটার দিকে তিনি তাঁর কম্পিউটার অপারেটরকে সঙ্গে নিয়ে সংবাদ লিখছিলেন। এ সময় চারজন যুবক এসে তাঁর কক্ষে ঢোকে। যুবকদের দুইজন মুখোশপরা, একজনের মাথায় হেলমেট পরা এবং একজন মুখোশ ছাড়া ছিল। তাঁরা কক্ষে ঢুকতেই তাঁদের একজন তাঁকে দেখিয়ে বলে ‘এই লোক’ বলতেই বাকিরা ভাঙচুর শুরু করে। 

মো. হানিফ আরও বলেন, দুর্বৃত্তরা এ সময় কার্যালয়ের কম্পিউটার ও অন্যান্য সামগ্রী ভাঙচুর করে। তাঁদের একজন সামনে থাকা চেয়ার তাঁর দিকে নিক্ষেপ করে। একই সময় আরেক যুবক হাতে থাকা পিস্তল তাঁর দিকে তাক করতেই তিনি চেয়ার দিয়ে তা প্রতিরোধ করেন। মো. হানিফ বলেন, দুর্বৃত্তরা এ সময় তাঁর কার্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানের দাওয়াত নিয়ে আসা নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকেও বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে ভয় দেখিয়ে চলে যায়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আশেপাশের বাসিন্দারা জানিয়েছেন, একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশাযোগে ওই যুবকেরা সাংবাদিকের কার্যালয়ের নিচে এসে নামেন। আনুমানিক চার-পাঁচ মিনিট পর ওই যুবকেরা প্রকাশ্যে অস্ত্র উছিয়ে ওই দোতলা থেকে নেমে পুণরায় অটোরিকশায় উঠে চলে যান।

ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ কে এম জহিরুল ইসলাম উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, বিষয়টি তাঁরা গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুজে বের করতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে।

/এফআইজে