• বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

ঝালকাঠিতে সূর্যালোক গুণীসাংবাদিক সম্মাননা পাচ্ছেন চাঁদ ও আক্কাস

প্রকাশ:  ০৯ মে ২০১৮, ১৪:৪১
ঝালকাঠি প্রতিনিধি
প্রিন্ট

সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদান রাখায় ঝালকাঠিতে ‘সূর্যালোক গুণীসাংবাদিক সম্মাননা ২০১৮’ এর জন্য শামসুল ইসলাম চাঁদ (মরণোত্তর) ও মোঃ আক্কাস সিকদার মনোনীত হয়েছেন। সৃজনশীল সাংবাদিকতা উৎসাহিত করতে ‘মানুষ মানুষের জন্য’ স্লোগানে প্রতিষ্ঠিত স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘সূর্যালোক ট্রাস্ট’ প্রথমবারের মতো এ সম্মাননা দিচ্ছে।

বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে আয়োজন করা হবে ‘সম্মাননা অনুষ্ঠান’। গুণী সাংবাদিককে সম্মাননা স্মারক, সনদপত্র, ১০ হাজার টাকার চেক ও উপহার সামগ্রী দেয়া হবে। মনোনয়নের ক্ষেত্রে শুধু ঝালকাঠি জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের বিবেচনা করা হয়। এছাড়া পেশার মর্যাদা রক্ষা ও সত্যের পথে নির্ভীক থাকা এবং মানবাধিকার, দুর্নীতি ও এলাকার জনগুরুত্বপূর্ণ সমস্যা সংক্রান্ত রিপোর্ট গুরুত্ব পায়।

দৈনিক ইত্তেফাক ও বাংলাদেশ বেতারের সাবেক প্রতিনিধি মরহুম শামসুল ইসলাম চাঁদের জন্ম ১৯৪৪ সনের ১ জানুয়ারি। সাংবাদিকতা করেছেন দীর্ঘ ৪০ বছর। যা শুরু হয়েছিল ১৯৬৭ সনে সাপ্তাহিক পূর্বদেশ পত্রিকার মাধ্যমে। তিনি ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের ১১ বছর সভাপতি ও ২০ বছর সাধারণ সম্পাদক পদের দায়িত্ব পালন করেন। তার মূল পেশা ছিল শিক্ষকতা এবং তিনি ‘চান স্যার’ হিসেবেই বেশি পরিচিত ছিলেন। এছাড়াও তিনি ছিলেন কবি, সাহিত্যিক, সংস্কৃতিজন। ২০০৭ সালের ৮ জানুয়ারি তিনি ইন্তেকাল করেন।

আক্কাস সিকদার দৈনিক যুগান্তর, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস), দীপ্ত টিভি ও দৈনিক আজকের বার্তার জেলা প্রতিনিধি। জন্ম ১৯৭৬ সনের ১ জানুয়ারি। সাংবাদিকতা শুরু ১৯৯৭ সনে আজকের বার্তার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে। পরে দৈনিক প্রথম আলো, দৈনিক ভোরের কাগজ, দৈনিক ভোরের ডাক, দৈনিক জনতা, বৈশাখী টিভি, ইনডিপেন্ডেট টিভি, একাত্তর টিভি ও সিএসবি টিভিতে কাজ করেন। বর্তমানে তিনি ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সহসভাপতি। আগে সাধারণ সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষ পদের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি আইন পেশায়ও জড়িত।

ওএফ

ঝালকাঠিতে সূর্যালোক গুণীসাংবাদিক,পাচ্ছেন চাঁদ ও আক্কাস