• মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫
  • ||

মেসি-রোনালদো বিতর্কে বিবাহবিচ্ছেদ রুশ দম্পতির

প্রকাশ:  ১৩ জুলাই ২০১৮, ১১:০৪
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট

পুতিনের দেশে বিশ্বকাপে মেসি ও রোনালদো দেশের জার্সিতে সেরা দিতে ব্যর্থ৷ পারেননি নিজেদের দেশকে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছতে৷ কিন্তু পেরেছেন এক রুশ দম্পতির বিবাহবিচ্ছেদ ঘটাতে! হ্যাঁ! শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে রাশিয়া বিশ্বকাপে মেসি-রোনাল্ডোদের খেলা চলাকালীন৷ রোনালদো না মেসি কে বড় খেলোয়াড়? কার স্কিল বেশি? কে ড্রিবলিংয়ে বেটার? কার হেয়ারস্টাইল ভালো? এই বিতর্কেই যবনিকা পড়ল ১৪ বছরের দাম্পত্য জীবনের৷

রাশিয়ায় বিশ্বকাপ শুরু থেকেই মেসি ও রোনালদোকে নিয়ে তর্ক চলত আর্সেন ও লিয়ুদমিলা দম্পতির৷ কিন্তু এর চরম পরিণতি হয় ঘটে গ্রুপে আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া ম্যাচের পর৷ মেসি ভক্ত স্বামীর তাঁর প্রিয় ফুটবলারকে নিয়ে মসকরা পছন্দ না-হওয়ায় পরের দিন আদালতে ডিভোর্সের আবেদন করেন আর্সেন৷

আর্সেন-লিয়ুদমিলা প্রথম দেখা হয়েছিল বিশ্বফুটবলের মঞ্চেই৷ আর শেষটাও বিশ্বকাপ মঞ্চে৷ ২০০২ জাপান-কোরিয়া বিশ্বকাপে সাক্ষাত হয়ে আর্সেন-লিয়ুদমিলার৷ ২০০৪ একে অপরের সঙ্গে জীবন কাটানোর সম্পর্কে আবদ্ধ হন৷ কিন্তু পুতিনের দেশে বিশ্বকাপে মেসি-রোনালদোর পারফরম্যান্স ইতি টানল দীর্ঘ ১৪ বছরের দাম্পত্য জীবনের৷

আর্সেন হলেন আর্জেন্টাইন তারকা মেসির অন্ধভক্ত৷ আর লিয়ুদমিলা ছিলেন রোনাল্ডো ভক্ত৷ বিশ্ব ফুটবলের দুই মহা তারকাকে নিয়ে দু’জনের মধ্যে প্রায় তর্কতর্কি চলত৷ রাশিয়ান নিউজপেপার দ্য মিরর-এ প্রাকাশিত খবর অনুয়ারী মেসিকে নিয়ে দু’জনের মধ্য তর্কাতর্কি হয়৷ নাইজেরিয়ার বিরুদ্ধে গ্রুপের শেষ ম্যাচে জিতে মেসিদের নক-আউটে ওঠার আনন্দ সেলিব্রেশনের সময়ও মেসিকে নিয়ে মসকরা করতে থাকেন আর্সেনের স্ত্রী৷

বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে মেসির পেনাল্টি মিসের পরও হাস্যকর মন্তব্য করেছিলেন লিয়ুদমিলা৷ আর্সেন জানান, পেনাল্টি মিসের পর ও আমাকে বলেছিল, মেসি তো খেলতেই জানে না৷ তাঁর প্রিয় খেলোয়াড়কে নিয়ে বারবার মসকরা করায় জীবনসঙ্গীকে ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন আর্সেন৷

/এস কে