• শনিবার, ২৬ মে ২০১৮, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫
  • ||

নেইমারের গায়ে ট্রফির ‘ট্যাটু’

প্রকাশ:  ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:১৬
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রিন্ট
এক বছর আগেও স্প্যানিশ ফুটবলে মুখোমুখি হতেন বিশ্ব ফুটবলের পর্তুগিজ ও ব্রাজিলীয় মহাতারকা। বার্সেলোনার জার্সি গায়ে নেইমার দ্যা সিলভা স্যান্টোস জুনিয়র এবং রিয়াল মাদ্রিদের ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো।

গত মৌসুমেই দল বদলে বার্সেলোনা থেকে ফ্রান্সের প্যারিস সাঁ জারমঁ-য় গিয়েছেন ব্রাজিলীয় নেইমার। কিন্তু ইউরোপের ফুটবলে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে, আগামী মৌসুমে পিএসজি ছেড়ে রিয়াল মাদ্রিদেই যোগ দেবেন তিনি। যা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালের আগে আরও উস্কে দিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ রক্ষণে খেলা নেইমারের দেশী মার্সেলো। ব্রাজিলীয় লেফটব্যাক বলেছেন, ‘‘রিয়ালের মতো সেরা দলে নেইমার একদিন খেলবেই।’’ এমনকি স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রেখয়-ও জোরালো সওয়াল করেছেন নেইমারকে মাদ্রিদে নেওয়ার জন্য। পিএসজি-র ব্রাজিলীয় তারকা অবশ্য এর কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি। বরং তিনি মজে সান্তিয়াগো বার্নাব্যু-এ নিজের সাম্বা ফুটবলের ঝলক দেখিয়ে রিয়াল সমর্থকদের থেকে আরও সমীহ আদায় করে নেওয়া।

অন্য দিকে, লা লিগা ও কোপা দেল রে-তে ব্যর্থ হওয়ার পরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগকেই নিজের প্রত্যাবর্তনের মঞ্চ হিসেবে ধরছেন রিয়াল মাদ্রিদের ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। পাখির চোখের মতো নিশানা করছেন তৃতীয় বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফিটা ধরার।

প্যারিস সঁ জারমঁ বনাম রিয়াল মাদ্রিদ-এর শেষ ষোলোর লড়াইয়ে দু’দলে তারকার অভাব নেই। পিএসজি-র নিউক্লিয়াস যদি হয়, এমবাপে-নেইমার-কাভানি। তা হলে রিয়ালের ‘পাওয়ার হাউজ’ বেল-বেঞ্জেমা-ক্রিশ্চিয়ানো। এই এমএনসি বনাম বিবিসি-র সম্মুখসমরে ফুটবলার দুনিয়ার চোখ সব তারকাকে ছাপিয়ে কেন্দ্রবিন্দুতে রাখছে দুই তারকাকেই। ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো বনাম নেইমার দ্যা সিলভা স্যান্টোস জুনিয়র।

রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান যদিও তা মানতে নারাজ। বলছেন, ‘‘বিশ্ব ফুটবলের দুই সেরা ফুটবলারের দ্বৈরথ বলা হচ্ছে ম্যাচটাকে। কিন্তু বুধবারের ম্যাচটা কখনও রোনাল্ডো বনাম নেইমার নয়। ম্যাচটা হবে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে প্যারিস সঁ জারমঁ-র।’’ সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন, ‘‘ক্রিশ্চিয়ানো পাঁচ বার ব্যালন ডি’ ওর খেতাব জিতেছে। কিন্তু নেইমারও দুর্দান্ত প্রতিভার অধিকারী। দু’জনের কোনও তুলনাই হয় না। আর কোনও ব্যক্তিগত লড়াই নয় এটা।’’ 

চ্যাম্পিয়ন্স লিগকে থিম বানিয়ে সারা শরীরে ট্যাটু করিয়েছেন নেমার।

মেগা ম্যাচের আগে নেইমার যদিও রয়েছেন খোশমেজাজেই। সোমবার গিয়েছিলেন ট্যাটু পার্লারে। সেখানেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগকে থিম বানিয়ে সারা শরীরে ট্যাটু করিয়েছেন। এ দিন যা ঘুরছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইটে। মঙ্গলবার মাদ্রিদে পা দেওয়ার পরেও নেইমারকে দেখা গিয়েছে একদম খোশ মেজাজে। তার আগে চার ডিগ্রি তাপমাত্রায় প্যারিসে অনুশীলন চলাকালীন কখনও সতীর্থ থিয়াগো সিলভা, মার্কুইনোস কখনও বা মার্কো ভেরাত্তি, এদিনসন কাভানিদের সঙ্গে খুনসুটি করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। কখনও আবার এমবাপের কাঁধ ধরে লাফাতেও দেখা গিয়েছে ব্রাজিলীয় তারকাকে। যা দেখে মাঠের বাইরে হাসতে হাসতে গড়িয়ে পড়েন পিএসজি-র প্রেসিডেন্ট নাসির আল খিলাফিও।

অন্য দিকে, গ্রুপে টটেনহ্যামের কাছে পিছনে থেকে দ্বিতীয় হওয়ায় নকআউট পর্বের শুরুতেই পিএসজি-কে খেলতে হচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ-কে। যার জন্য, রিয়াল সমর্থকদের একাংশ চিন্তিতও। কারণ, বায়ার্নের সঙ্গে একই গ্রুপে থেকে পিএসজি ছয় ম্যাচে রেকর্ড ২৫ গোল দিয়ে মুখোমুখি হচ্ছে রিয়ালের। যদিও মঙ্গলবার অনুশীলনে রোনাল্ডোকে দেখে তার আভাস মেলেনি। বরং খোশমেজাজেই দেখা গিয়েছে সিআর সেভেন-কে। এ দিন রিয়াল অনুশীলনেও কখনও মিডফিল্ডার কাসিমিরো-র সঙ্গে খুনসুটি করছেন, তো কখনও বা বেলের সঙ্গে মেজাজে ট্রেনিং করছেন রোনাল্ডো।

তবে প্রচারমাধ্যমের সঙ্গে কোনও কথা বলেননি। তাঁর হয়ে উত্তর দিয়ে গিয়েছেন রিয়ালের জার্মান মিডিও টনি ক্রুস। তাঁর কথায়, ‘‘হয়তো ওদের দলে বিশ্বের সেরা গোলকিপার, ডিফেন্ডার, মিডফিল্ডার আর ফরোয়ার্ডরা রয়েছে। জানি, ওরা সব দুর্দান্ত।’’ সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন, ‘‘আমাদের নিজেদের খেলাটা মেলে ধরতে হবে। ওদের সমান শক্তি আমাদের সব বিভাগে রয়েছে। আর রয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। যে ম্যাচের রং বদলে দিতে পারে নিমেষে।’’ বোঝাই যাচ্ছে, মাদ্রিদে আজ মহারণ।

/এস কে