• বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ৩ কার্তিক ১৪২৫
  • ||

সৌরজতের বাইরে, ইন্টারস্টেলারের প্রান্তে নাসার মহাকাশযান

প্রকাশ:  ০৮ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:০২ | আপডেট : ০৮ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:০৫
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট

মহাকাশ নিয়ে বিজ্ঞানীদের ভাবনার কোনো শেষ নেই। এ নিয়ে গবেষণা চলছে দীর্ঘদিন ধরে। তবে মহাকাশবিজ্ঞানের ইতিহাসে আরও একটি যগান্তকারী ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে। তা হলো নাসার তৈরি ভয়েজার–২ নভোযান ৪১ বছর পর ইন্টারস্টেলার স্পেসে ঢুকতে চলেছে। নাসা এক বিবৃতির মাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছেন। নাসা তাদের বিবৃতিতে আরও জানিয়েছে যে ভয়েজার–২ মহাকাশযান মহাজাগতিক রশ্মি বৃদ্ধির মুখে পড়েছে। ভয়েজার-২ যানটি ১৯৭৭ সালে মহাকাশে পাঠায় নাসা।

নাসার গবেষকরা জানান, বর্তমানে ভয়েজার–২ যানটি যে ধরনের রশ্মির সামনে পড়েছে তার উৎপত্তি হয়েছে সৌরজগতের বাইরে থেকে। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হয় যে, এ মহাকাশযানটি ইন্টারস্টেলার স্পেসের কাছাকাছি পৌঁছেছে। মহাকাশ যানটি এখন যে এলাকা অতিক্রম করছে তা তাকে বিজ্ঞানের ভাষায় হেলিওপজ বলা হয়। এখানে সৌরঝড়ে এক ধরনের বুদবুদ তৈরি হয়, যাকে হেলিওস্ফেয়ার বলা হয়।

এর আগেও এই যানটি এমন ধরনের রশ্মির মুখে পড়েছিল। ২০১২ সালের মে মাসে ভয়েজার–১ তখন হেলিওস্ফিয়ারের বাইরের সীমানায় অবস্থান করছিল। বর্তমানে এটি পৃথিবী থেকে ১৭ দশমিক ৭ বিলিয়ন কিলোমিটার দূরত্বে রয়েছে। ইতোমধ্যে এ মহাকাশযান বৃহস্পতি (১৯৭৯), শনি (১৯৮১) ইউরেনাস (১৯৮১) ও নেপচুন (১৯৮৯) ভ্রমণ করেছে।

তবে এটি ঠিক কবে সৌরজগতকে অতিক্রম করতে পারবে তা নিশ্চিতভাবে জানাতে পারেননি গবেষকরা। কারণহেলিওস্ফেয়ারের সীমানা পরিবর্তিত হয়। সূর্যের ১১ বছরের চক্রে এ সীমানা পরিবর্তন হয়ে থাকে।

/রবিউল

ইন্টারস্টেলার,মহাকাশযান,ভয়েজার–২,নাসা