• মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ৮ কার্তিক ১৪২৫
  • ||

শাড়ির জমকালো সাজে ঈদ

প্রকাশ:  ০৬ জুন ২০১৮, ১৩:৪৪ | আপডেট : ০৬ জুন ২০১৮, ১৪:১৪
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট

এবারের ঈদে খানিকটা গরম থাকায় সুতি, খাদি, অ্যান্ডি, সিল্ক, হাফ সিল্ক শাড়ির প্রতি সবার আগ্রহ একটু বেশি। তাই শাড়ি জমকালো, মেকআপটা চড়া। ভাবুন তো, কেমন জবড়জং দেখাবে। তাহলে কি জমকালো শাড়ি পরলে সাজতে মানা? বিষয়টা এমনটিও নয়। এবার ঈদে নিয়ে এসেছে আকর্ষণীয় সব ডিজাইনের শাড়ি নিয়ে সেজেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল ব্র্যান্ডগুলো।

রূপবিশেষজ্ঞদের পরামর্শ হলো, ভারী কাজের বা উজ্জ্বল রঙের পোশাক পরলে সাজের প্রতি বিশেষ মনোযোগ দিতে হবে। তখন খুব মিলিয়ে বা চড়া মেকআপ—কোনোটাই দেওয়া ঠিক নয়। সবার আকর্ষণ যেহেতু পোশাকের দিকে থাকবে; ফলে সাজ যত স্নিগ্ধ হবে, তত ভালো দেখাবে।

ধরুন, আপনার শাড়ির পুরোটাজুড়ে ভারী কাজ। লাল, নীল, কালো বা সবুজ কোনো রং। দিনের কোন সময়ে আপনি বের হবেন, সেটিও বিবেচনা করতে হবে। সন্ধ্যা বা রাতের দিকে জমকালো পোশাক মানাবে। কিউবেলার স্বত্বাধিকারী ফারজানা মুন্নী জানান, মুখের যেকোনো একটা অংশকে আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন। ঠোঁটে যদি লাল বা কমলা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করেন, তাহলে চোখের সাজ খুবই হালকা করতে হবে। তা না হলে কোনোটাই বোঝা যাবে না। জমকালো শাড়ি পরলে মুখের সাজের চেয়ে চুলের সাজে নানা ঢং করতে পারেন।

আবার চোখে ধূসর ছাই রং আইশ্যাডো বা কাজল একটু ঘষে স্মোকি ভাব আনা যেতে পারে। জমকালো শাড়ির সঙ্গে চোখের এই সাজ বেশ মানিয়ে যায়। তখন লিপস্টিক বাদামি, পিচ বা গোলাপির মতো হালকা রঙের হতে হবে। আবার সোনালি রঙের আইশ্যাডোও দিতে পারেন। চাইলে শুধু কাজল দিয়েও চোখ আঁকা যেতে পারে। তাতেও আকর্ষণীয় দেখাবে। চোখের পাতা ঘন দেখাতে মাশকারা দুবার করে ব্যবহার করবেন। প্রথমে একবার দিয়ে শুকিয়ে এলে পরে আরেকবার দেবেন। হালকা করে ব্লাশন ও ব্রোঞ্জারের প্রলেপ দিতে পারেন।

খেয়াল রাখতে হবে, সাজের শুরুতেই ময়েশ্চারাইজার দিয়ে নিতে হবে। এরপর স্টিক ফাউন্ডেশন বা মিনারেল ফাউন্ডেশন দিয়ে বেইস করে নিতে হবে। হালকা কমপ্যাক্ট পাউডার দিয়ে মুখের বেইস ঠিক করতে হবে। জমকালো শাড়ির সঙ্গে চুলের সাজে বৈচিত্র্য আনলে ভিন্নতা আসবে চেহারায়। চুল না ছেড়ে একটু আলতো খোঁপা বা পেঁচিয়ে ক্লিপ দিয়ে বাঁধতে পারেন। লম্বা চুল হলে বেণিও করলে ভালো দেখাবে। নিরীক্ষাও চালাতে পারেন নিজের চুলে। সাজ শেষে সুগন্ধি নিয়ে মন ফুরফুরে করে বেরিয়ে পড়ুন।

/এসএইচ