• রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

বৈশাখী স্পেশাল: ইলিশের ৭ রেসিপি

প্রকাশ:  ০৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:১৭ | আপডেট : ০৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৮:৩৭
পূর্বপশ্চিম ডেস্ক
প্রিন্ট

দুয়ারে কড়া নাড়ছে প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। বাঙালি জাতির প্রধান সাংস্বৃতিক উৎসব। এ উৎসবের অন্যতম অনুষঙ্গ ইলিশ। অনেকে দিনটি পান্তা-ইলিশেই সীমিত থাকেন। এই বৈশাখে ইলিশ মাছ দিয়ে অন্য কোনো মুখরোচক খাবারের কথা ভাবতে পারেন। ভোজনবিলাসী পাঠকের জন্য ইলিশের ৭টি আকর্ষণীয় রেসিপি দেওয়া হলো।

ইলিশ পোলাও

উপকরণ : ১. পোলাওয়ের চাল ২ কাপ, ২. ইলিশের টুকরা ৬-৭টি (বড় ইলিশ), ৩. টকদই আধা কাপ, ৪. আদাবাটা ১ টেবিল-চামচ, ৫. কাঁচা মরিচ ৬-৭টি, ৬. তেল ২ টেবিল-চামচ, ৬. ঘি আধা কাপ , ৭. পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ, ৮. লবণ পরিমাণমতো, ৯. পেঁয়াজকুচি কোয়ার্টার কাপ, ১০. পেঁয়াজবাটা কোয়ার্টার কাপ, ১১. দুধ আধা কাপ, ১২. লেবুর রস ২ টেবিল-চামচ।

প্রণালি : কড়াইতে তেল গরম করে পেঁয়াজকুচি হালকা ভেজে নিন। এবারে আদা, দই, পেঁয়াজবাটা ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে কষিয়ে ইলিশ মাছ ও লেবুর রস দিয়ে মৃদু আঁচে ঢেকে দিন। ১০ মিনিট পর মাছের টুকরাগুলো ঝোল রেখে তুলে নিন। ঝোলের কড়াইতে ঘি এবং অর্ধেক বেরেস্তা দিয়ে একটু রান্না করে চাল দিয়ে কষিয়ে গরম পানি (৪ কাপ) ও কাঁচা মরিচ দিয়ে ঢেকে দিন। পানি শুকিয়ে এলে কিছু পোলাও উঠিয়ে নিন। মাছের টুকরোগুলো পোলাওয়ের উপর বিছিয়ে দিন। এবার তুলে নেওয়া পোলাও, মাছের উপর দিয়ে বাকি বেরেস্তা ও দুধ দিয়ে ঢেকে দমে দিন। ১৫-২০ পর হয়ে গেলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ইলিশ কোফতা-কারি

উপকরণ : ধাপ -১ ১. ইলিশ মাছের সেদ্ধ কিমা ২ কাপ, ২. ডিম ফেটানো ১টি, ৩. পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, ৪. কাঁচা মরিচকুচি ১ টেবিল-চামচ, ৫. লবণ পরিমাণমতো, ৬. লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ, ৭. ধনেপাতাকুচি ২ টেবিল-চামচ, ৮. টমেটো সস ১ টেবিল-চামচ, ৯. টোস্টের গুঁড়া আধা কাপ, ১০. পাউরুটির (সাদা অংশ) ১ পিস, ১১. ভাজার জন্য তেল পরিমাণমতো

ধাপ -২ ১. পেঁয়াজবাটা পৌনে এক কাপ, ২. টকদই ২ টেবিল-চামচ, ৩. মরিচগুঁড়া ১ চা-চামচ, ৪. জিরাগুঁড়া আধা চা-চামচ, ৫. আদাবাটা আধা চা-চামচ, ৬. টমেটো সস ১ টেবিল-চামচ, ৭. লবণ পরিমাণমতো, ৮. চিনি ১ চিমটি, ৯. তেল কোয়ার্টার কাপ,

প্রণালি :ধাপ -১ একটি পাত্রে সব উপকরণ ভালোভাবে মাখিয়ে নিন। মাখানো উপকরণ ৮-১০ ভাগ করে গোলকার করে কোফ্তা বানিয়ে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে কোফ্তা বাদামি করে ভেজে নিন।

ধাপ -২ কড়াইতে তেল গরম করে সব মসলা কষিয়ে নেয়ার পর দই, সস ও সামান্য দিয়ে নেড়ে দিন। এবারে কোফ্তাগুলো দিয়ে হালকা আঁচে ঢেকে দিন। ঝোল মাখা মাখা হলে চিনি দিয়ে নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ইলিশ পাতুরি

উপকরণ

ইলিশ মাছ ৪ টুকরো, সর্ষে বাটা পরিমান মতো, কাঁচা লঙ্কা ৫টি ৬ টি, সর্ষের তেল, হলুদ গুঁড়ো, লবন স্বাদ অনুযায়ী, কলাপাতা, সূতো (কলাপাতা মোড়ার জন্য)।

প্রণালী প্রথমে একটি পাত্রে পরিমান মতো সর্ষে বাটা, পরিমান মতো তেল, লবন, হলুদ ও অল্প কিছু লঙ্কা কুঁচি দিয়ে ভালো করে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নিন। এবার আর একটি পাত্রে ইলিশের সাথে এই মিশ্রণটি ভালো করে মাখিয়ে নিন। এবার পাত্রটিকে ২০ মিনিট ঢেকে রাখুন। এবার কলাপাতাটিকে চারটি বড়ো টুকরো করে কেটে নিন। এমন ভাবে কাটুন যাতে প্রতি টুকরো দিয়ে ইলিশ মাছের টুকরোগুলোকে মোড়ানো যেতে পারে। এবার কলাপাতাগুলোকে আগুনের তাপে রাখতে হবে যাতে ও গুলি নরম হয়ে যায় এবং সহজেই মোড়ানো যায়।

ইলিশ কোরমা

উপকরণ : ১. ইলিশ মাছ ৬ টুকরা, ২. পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, ৩. আদাবাটা ১ চা-চামচ, ৪. চিনি স্বাদমতো, ৫. বাদামবাটা ১ টেবিল-চামচ, ৬. কাঁচা মরিচ ৪-৫টি, ৭. লবণ স্বাদমতো, ৮. তেল কোয়ার্টার কাপ, ৯. লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ, ১০. গুঁড়া দুধ ১ টেবিল-চামচ

প্রণালি : কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ হালকা ভেজে নিন। সামান্য পানি দিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে নিন। লবণ, চিনি, বাদামবাটা, গুঁড়া দুধ দিয়ে একটু নেড়ে, কাঁচা মরিচ ও ইলিশ মাছ দিয়ে মৃদু আঁচে ঢেকে দিন। ১০-১৫ মিনিট রান্না করে নামিয়ে নিন।

সরষে ইলিশ

উপকরণ : ১. ইলিশ মাছ বড় ১টি, ২. সরিষা বাটা কোয়ার্টার কাপ, ৩. সরিষার তেল আধা কাপ, ৪. হলুদ সামান্য, ৫. মরিচগুঁড়া আধা চা-চামচ, ৬. আস্ত কাঁচা মরিচ ফালি ৫-৬টি, ৭. লবণ পরিমাণমতো, ৮. লেবুর রস ২ টেবিল-চামচ

প্রণালি : সব উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে নিন। এবারে আধা কাপ পানি মিশিয়ে চুলায় মৃদু আঁচে বসিয়ে ঢেকে দিন। মাখা মাখা হলে নামিয়ে নিন।

ইলিশ কাবাব

উপকরণ :

১. ইলিশ মাছ আস্ত ১টি, ২. গোলমরিচগুঁড়া ১ টেবিল-চামচ, ৩. পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, ৪. কাঁচা মরিচকুচি ১ টেবিল-চামচ, ৫. টমেটো সস ২ টেবিল-চামচ, ৬. আলু ম্যাশড্ ১ কাপ, ৭. ধনেপাতাকুচি ২ টেবিল-চামচ, ৮. রসুন ২ কোয়া (কুচি), ৯. লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ, ১০. লবণ স্বাদমতো, ১১. তেল আধা কাপ, ১২. পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, ১৩. লেবুর খোসা (গ্রেট করা) কোয়ার্টার চা-চামচ,

টোস্ট বিস্কুটের গুঁড়া ১ কাপ

প্রণালি : মাছের মাথা ও লেজ কেটে আলাদা করুন। সামান্য হলুদ, মরিচগুঁড়া ও পরিমাণমতো লবণ মাখিয়ে মাথা ও লেজ হালকা ভেজে নিন। এবার বাকি মাছ লবণ, লেবুর রস ও সামান্য পানি দিয়ে সেদ্ধ করে কাঁটা বেছে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে রসুন ও পেঁয়াজকুচি হালকা ভেজে মাছের কিমা দিয়ে নাড়তে থাকুন। দু-এক মিনিট পর সেদ্ধ আলু দিয়ে কিছুক্ষণ রান্না করে, একে একে গোলমরিচগুঁড়া, কাঁচা মরিচকুচি, স্বাদমতো লবণ, টমেটো সস দিয়ে রান্না করে নামিয়ে ঠা-া করে নিন। অন্য একটি প্যানে সামান্য তেল দিয়ে বিস্কুটের গুঁড়া বাদামী করে ভেজে নিন। এবারে রান্না করা কিমার সঙ্গে ধনেপাতাকুচি, লেবুর খোসা ও বেরেস্তা ভেঙে আলতো করে মাখিয়ে নিন। সার্ভিং ডিশে দুই পাশে ভাজা লেজ ও মাথা রেখে, মাঝখানে মাখানো কিমা সাজিয়ে আস্ত মাছের মতো বানিয়ে নিন। সাজানো কিমার ওপর ভাজা বিস্কুটের গুঁড়া ছড়িয়ে চেপে দিন। কিমার উপর চা-চামচ দিয়ে মাছের আঁশের মতো বানিয়ে পরিবেশন করুন।

দই ইলিশ

উপকরণ : ১. ইলিশ ৬ টুকরা (মাছের টুকরোগুলো লবণ মাখিয়ে ধুয়ে রাখুন) , ২. তেল কোয়ার্টার কাপ, ৩. পেঁয়াজবাটা আধা কাপ, ৪. হলুদগুঁড়া ১ চিমটি, ৫. কাঁচা মরিচবাটা ১ চা-চামচ, ৬. টকদই ২ কাপ, ৭. আদাবাটা আধা চা-চামচ, ৮. লবণ পরিমাণমতো, ৯. চিনি আধা চা-চামচ (বা প্রয়োজনমতো)

প্রণালি : কড়াইয়ে তেল গরম করে সব মসলা দিয়ে কষিয়ে নিন। এবার দই দিয়ে নেড়ে মাছের টুকরোগুলো দিন। চুলার আঁচ একেবারে কমিয়ে ঢেকে দিন। ১৫-২০ মিনিট পর তেল ভেসে উঠলে চিনি দিয়ে নামিয়ে নিন।