• শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮, ৩ ভাদ্র ১৪২৫
  • ||

বইমেলায় নিরবতার শেকল ভাঙার আনন্দ দিচ্ছেন জয়া করিম

প্রকাশ:  ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৫:৪৮
উৎপল দাস
প্রিন্ট

সৃষ্টির সেরা জীব মানুষকে কখনো পরাজিত করা যায় না, শেকলে বাঁধাও যায়না। প্রতিভার স্ফুরণ ঘটবে এটাই প্রকৃতির অমোঘ নিয়ম। প্রতিবন্ধী বা অটিস্টিক মানুষগুলোও যে শত বাঁধা অতিক্রম করে এ সমাজকে আলোকিত করতে পারেন তারই চিত্রপট ফুটিয়ে তুলেছেন মেধাবি ও তরুণ আলোকচিত্রী জয়া করিম।

অমর একুশে বইমেলার অন্যতম সেরা আকর্ষণগুলোর মধ্যে আলোচিত হচ্ছে জয়া করিমের ‘ লেটস ব্রেক দ্যা সাইলেন্স’। নিজের তোলা ৮৯ টি আলোক চিত্রে জয়া ফুটিয়ে তুলেছেন কিভাবে ভালোবাসা, স্নেহের পরশে একজন অটিস্টিক শিশু তার ভেতরের সুপ্ত প্রতিভাকে বিকশিত করতে পারেন। নিরবতার শেকল ভাঙার আনন্দ যে কতটা মধুর হতে পারে তা তিনি নিখুতভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন বইটিতে। তিনি বিশেষ শিশু হিসাবেই তাদের আখ্যায়িত করেছেন।

লেটস ব্রেক দ্যা সাইলেন্স বইটিতে এমনই কিছু প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক শিশুর (বিশেষ শিশু) চিত্রপট ফুটিয়ে তুলেছেন যা দেখে সমাজের অনেকেই অনুপ্রাণিত হবেন। কোনো অবহেলা নয়; ভালোবাসা দিয়ে অটিস্টিক শিশুদের প্রভিতার স্ফুরণ ঘটিয়ে সমাজ ও রাষ্ট্রের কাজে লাগাবেন-এমন প্রত্যাশা থেকেই বইটির কাজ শুরু করেছিলেন বলে জানান জয়া করিম।

পূর্বপশ্চিমকে তিনি বলেন, আমাদের পরিবার ও সমাজে এমন অনেক বিশেষ শিশু স্বজন আছেন। তাদের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা আছে। সহানুভূতিশীল হয়ে একটু আদরের ছোঁয়া দিয়ে যদি তাদের মানবসম্পদে পরিণত করা যায়, তাহলে সবার মুখেই হাসি ফুটবে। এমন চিন্তা থেকেই বইটি করেছি।

লেটস ব্রেক দ্যা সাইলেন্স বইটি প্রকাশ করেছে যুক্ত প্রকাশনী। অমর একুশে গ্রন্থমেলার ৩০৬-৩০৭ নম্বরে যুক্ত’র স্টলে পাওয়া যাচ্ছে বইটি।

/ইউডি/