• বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

ছাত্রলীগ পেটাল ছাত্রলীগকে

প্রকাশ:  ২৬ মে ২০১৮, ১১:৪৪ | আপডেট : ২৬ মে ২০১৮, ১১:৪৫
ইবি প্রতিনিধি
প্রিন্ট

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গ্রুপের এক কর্মীকে পিটিয়েছে সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মীরা। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদ্দাম হোসেন হল মাঠে এ মারধরের ঘটনা ঘটে। মারধরের শিকার হওয়া ওই কর্মীর নাম আব্দুল হাফিজ। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী বলে জানা গেছে।

প্রত্যাক্ষদর্শী ও মারধরের শিকার ওই শিক্ষার্থী জানায়, গতকাল রাত ৯টার দিকে শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমের কর্মী হিমেল চাকমা হাফিজকে ফোন দিয়ে সাদ্দাম হল মাঠে ডাকে। এরপর হাফিজ সেখানে গেলে সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মী ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী কামরুল হাসান অনিক, বিপুল, একই বর্ষের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সুদিপ্ত, হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী নিল তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

এরপর সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের কর্মী ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত ও নুরুজ্জামান সাগরসহ আরও কয়েকজন কর্মী সেখানে গেলে তাদের উপস্থিতিতে অনিক, বিপুল, সুদিপ্ত, নিলসহ ৮/১০ জন কর্মী তাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও মারধর করে।

পরে আরাফাত ও তার সঙ্গীরা চলে গেলে অনিক ও বিপুল হাফিজকে টানতে টানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পেয়াঁরা বাগানের দিকে নিয়ে যায়। এরপর সেখানে তারা এই ঘটনা যাতে কাউকে না বলে সেজন্য তার উপর চাপ প্রয়োগ করে এবং বললে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় তারা। এরপর হাফিজ হলের দিকে গেলে প্রায় ঘন্টাখানেক পর বিপুল আবার ফোনে তাকে হুমকি ধাকমি দেয় বলে জানা গেছে।

এদিকে মারধরের ওই ঘটনার পর হাফিজ প্রাণনাশ থেকে বাঁচার নিশ্চয়তা প্রদান ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের দাবি চেয়ে প্রক্টর বরাবর লিখিত আবেদন করছে বলে জানা গেছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমান মারধরের বিষয়টি জানেন না। এবং লিখিত কোন অভিযোগ পায়নি বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উভয়ের সাথে কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাদের কাউকে ফোনে পাওয়া যায়নি।