• বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ২ কার্তিক ১৪২৫
  • ||

গ্রেনেড হামলার বিচার হওয়ার দরকার ছিল, হয়েছে: মতিউর রহমান

প্রকাশ:  ১১ অক্টোবর ২০১৮, ২২:০৯
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

প্রথম আলোর সম্পাদক ও প্রকাশক মতিউর রহমান বলেছেন , ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার দায় বিএনপিকেই বহন করতে হবে। ঘটনার ১৫ বছর পর বিচার হয়েছে। ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে, যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ১৯ জনকে। এছাড়া আরও অনেকেই বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে। এটার বিচার হওয়ার দরকার ছিল, হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) চ্যানেল আইয়ের 'আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এবং গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বদের চোখে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়' শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এসব কথা বলেন তিনি।

মতিউর রহমান বলেন, বিএনপি সরকার বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে এই ঘটনার কোনো তদন্ত করতে দেয়নি। বিচার তো দূরের কথা বরং তারা এই ঘটনাকে উল্টোমুখে প্রচার চালিয়ে এর সব দায় আওয়ামী লীগের উপর দেয়ার চেষ্টা করেছিল। শুধু আওয়ামী লীগ না একই সাথে আমাদের প্রতিবেশী ভারতকে জড়ানোর চেষ্টা চালানো হয়েছিল। তারা এতো মিথ্যা তথ্য দিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা হয়েছিল। এটা একটা অদ্ভূত কল্প কাহিনীকে ছাড়িয়ে যায়। একটা দেশের সরকার সে যদি একটা এই রকম ভয়ঙ্কর ঘটনা - যেখানে দেশের প্রধান দলের নেত্রীর জীবন নাশের শঙ্কার ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির চেষ্টা ছিল। সেটাকে যদি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়, ঘটনাকে যদি উল্টোমুখে প্রবাহিত করা হয়, সেটা যদি সুষ্ঠু তদন্ত না হয়, যদি বিচারের চেষ্টা করা না হয়, এর চেয়ে দূর ভাগ্যজনক-দুঃখজনক আর কিছু হতে পারে না।

প্রথম আলোর সম্পাদক বলেন, এই রায়ে সন্তুষ্ট প্রকাশ করেছি। এরপরও কারো কোনো বক্তব্য থেকে থাকে, তারা হাইকোর্টে যাবেন। আপিল করবেন। তাদের আইনি যুক্তিতর্ক হবে। তবে সন্তুষ্টির বিষয় যে এই রকম একটা ভয়ঙ্কর ঘটনার বিচার হওয়ার উচিত ছিল, তবে বিলম্ব হয়েছে তারপরও হয়েছে। দেশের রাজনীতির উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে বিলম্ব হয়েছে, এটা দুঃখজনক।

উল্লেখ্য, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের সংবাদ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতে গুরুত্বের সাথে প্রচার ও প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রথম আলোর সম্পাদক ও প্রকাশক মতিউর রহমান,গ্রেনেড হামলা