• মঙ্গলবার, ১৯ জুন ২০১৮, ৫ আষাঢ় ১৪২৫
  • ||
শিরোনাম

কমলাপুরে মানুষের ঢল

প্রকাশ:  ১৩ জুন ২০১৮, ১১:১৮ | আপডেট : ১৩ জুন ২০১৮, ১২:০০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড়ে পা ফেলানোর জায়গা নেই কমলাপুর রেল স্টেশনে। প্রতিটি ট্রেনে যাত্রীতে ঠাসা অবস্থায় ছেড়ে যাচ্ছে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে। মহাসড়কে যানজট এড়াতে যাত্রার জন্য বহু মানুষ ট্রেনকে বেছে নেয়ায় এই ভিড় হয়েছে।

রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে বুধবার (১৩ জুন) ভোর থেকে ঈদযাত্রীরা আসতে শুরু করে। সকাল ছয়টার আগেই স্টেশনের প্রতিটি প্লাটফর্মেই হাজার হাজার মানুষ জড়ো হতে থাকে। প্রতিটি ট্রেনেই ছিল যাত্রীতে ঠাসা।

দিনের প্রথম ট্রেন ঢাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জের উদ্দেশে সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে ছাড়ার কথা থাকলেও সেটি প্রায় ৫০ মিনিট দেরিতে ছাড়ে। দিনের দ্বিতীয় স্পেশাল ট্রেন সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে ঢাকা থেকে লালমনিরহাটের উদ্দেশে ছাড়ার কথা থাকলেও তা প্লাটফর্মে এসে পৌঁছায় সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটেও।

এদিকে স্পেশাল ট্রেনের ভোগান্তি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন অনেক যাত্রী। তাদের মতে, স্পেশাল ট্রেন সময় মতো না ছাড়াটা দুঃখজনক।

সিহাব উদ্দিন নামের এক যাত্রী লালমনিরহাট স্পেশাল ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছেন প্রায় এক ঘণ্টা ধরে। তিনি বলেন, এখনও ট্রেন আসেনি, কখন আসবে সেটাও কেউ বলতে পারছেন না। আর কতক্ষণ অপেক্ষার প্রহর গুনতে হবে জানিনা। যেহেতু বাড়ি ফিরতেই হবে, তাই এই ভোগান্তি মেনে নিতে হচ্ছে।

সাবিনা নামের এক যাত্রী বলেন, স্টেশনে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা বিরক্তিকর। এখানে মেয়েদের নানা সমস্যায় পড়তে হয়। কর্তৃপক্ষের উচিত ছিল শিডিউল ঠিক রাখা।

ঈদ যাত্রা বিষয়ে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, ঈদ যাত্রায় আমরা চেষ্টা করছি যেন সব ট্রেনই ঠিকমতো এসে নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে যায়। মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে ঈদে বাড়ি ফিরতে পারে সেজন্য বিভিন্ন পদক্ষেপও নেয়া হয়েছে। যাত্রী চাপ সামলাতে প্রায় প্রতিটি ট্রেনেই অতিরিক্ত বগি লাগানোর পাশাপাশি যাত্রীদের সুবিধার্থে বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থাও আছে।