• রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

ছতিছন্ন কবির কবিতা

প্রকাশ:  ২৪ জুন ২০১৮, ১৪:২৮
সাকিব জামাল
প্রিন্ট

সেদিন.... মাঝরাতে- নিরব নির্জনতায়,

ডুবে ছিলাম কবিতা লেখার খাতায়,

হঠাৎ তুমি এলে- কলম নিলে টেনে,

আমিও চুপচাপ নিলাম মেনে,

ভেবেছিলাম- প্রেমের কবিতা হবে যুগল সাধনায়।।

তুমি হাটতে শুরু করলে বেলকুনির জানালার দিকে,

আমিও চললাম পিছু পিছু,

হৃদয়ে ফুটেছিলো- কামনার ফুল কিছু কিছু!

বললে তুমি তাকাও আকাশের গায়-

কী সুন্দর একাকি চাঁদকে দেখা যায়!!!

আমি হাত ধরবো তোমার, ভেবে বাড়ালাম হাত-

চুড়ি বেঁজে উঠলো ঝুনঝুন সুরে,

তুমি টের পেয়ে সরে দাড়ালে আরেকটু দূরে!

কাছে আগালাম না- পা বাড়িয়ে স্পর্শ করলাম তোমার পায়-

নুপুরের শব্দে বেসুর - থামো কবি! আছি নীল বেদনায়!!

মানে? আমি জানতে চাই তোমার বেদনার কারণ,

তুমি বললে- "কবির সাথে প্রেম করতে বারণ!"

কেন? কেন?

- এর উত্তর তুমি দিলে না!

এখন আমি ছতিছন্ন কবি- এ জনমে আর সংসার হলো না!

এরপর....

প্রেমের সব অনুভুতি এখন আমার কবিতার খাতায়।

বিরহের সব অনুভুতি এখন আমার কবিতার খাতায়।

কামনার সব অনুভুতি এখন আমার কবিতার খাতায়।

মলাট বদ্ধ করে বইমেলায় বই করে দিবো-

ছতিছন্ন কবির কবিতা - অন্যকুটিরে বসে এবার পড়ে নিও!

/এসএম