• রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

সকালের গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে ভিজেছে শহর

প্রকাশ:  ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৪৯ | আপডেট : ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৫৪
রবিউল কমল
প্রিন্ট

মঙ্গলবারের আকাশে ভোরের আলো ফোটার আগেই একটু একটু করে কালো মেঘ জমতে শুরু করে। তাই সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা ছিল। এরপরেই হঠাৎ করেই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি নেমে আসে শহরের বুকে। এতেই ভিজে গেছে শহর। হঠাৎ বৃষ্টিতে প্রকৃতিতে ছিল শীতের আমেজ। হতেও পারে এটা শীতের আগমনী বার্তা।

সকালের এক পশলা বৃষ্টিতে শহরের পিচঢালা পথের সঙ্গে ভিজেছে ঝরে পড়া কাঁশফুলের ডাঁটাগুলো। ভিজেছে হালকা শীতে রুক্ষ হয়ে যাওয়া সবুজ পাতারা। প্রাণ ফিরে পেয়েছে প্রকৃতি।গাছের ডালে বসে থাকা কাকগুলোও এমন বৃষ্টিতে নিজেকে আড়াল করেনি। মনের সুখে ডানা ভিজে উড়ে বেড়িয়েছে। জানান দিয়েছে শীতকে বরণ করতে তারাও প্রস্তুত।

তবে এই বৃষ্টিতে মোটেও স্বস্তিতে ছিলেন না অফিসগামী মানুষ স্কুলের শিক্ষার্থীরা। ছুটির দিনে হলে হয়তো উপভোগ করা যেত এমন বৃষ্টির রোমান্টিকতা। কিন্তু কর্মময় দিনে রোমান্টিকতার পরিবর্তে অনেকের জন্য বিপত্তি ডেকে এনেছে বৃষ্টি।

মোহাম্মদপুরের তাজমহল রোডে বাবার হাত ধরে দাঁড়িয়ে ছিলেন সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র রাকিব। বাবার হাত ধরেই দাঁড়িয়েছিল রাকিব। রাকিবের বাবা বলেন, হঠাৎ বৃষ্টিতে সঙ্গে ছাতা না থাকায় বিপদে পড়েছি। বৃষ্টি হওয়ার কারণে রিক্সাওয়ালারাও বেশি ভাড়া দাবি করছে তাই দাঁড়িয়ে আছি।

এদিনের বৃষ্টিতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর, লালমাটিয়া, ধানমন্ডি, শ্যামলীতে হালকা বৃষ্টি হওয়ায় রাস্তাঘাটে যে ধুলোবালি জমে থাকে, তা থেকে নগরবাসীর কিছুটা রেহাই পেয়েছে। তবে ভোগান্তিতে পড়েন অফিস ও স্কুলগামীরা।

এদিকে এ প্রসঙ্গে আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক বলেন, পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বাতাসের সংমিশ্রণের ফলে ঢাকা, কুষ্টিয়া, রাজশাহী, রংপুর, সৈয়দপুর অঞ্চলে অস্থায়ীভাবে বৃষ্টি হচ্ছে। ঢাকায় খানিকটা দমকা হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। এটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। এই সময়ে এমন বৃষ্টিপাত হয় এবং সেটি ক্ষণস্থায়ী।

আবহাওয়া অফিস আরও জানায়, মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। সে জন্য কিশোরগঞ্জ জেলাসহ ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় হালকা বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

/রবিউল

apps