• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

জোট নেতাদের ছাড়াই মাজারে ড. কামাল

প্রকাশ:  ২৪ অক্টোবর ২০১৮, ০১:৫০
সিলেট প্রতিনিধি
প্রিন্ট

পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী সিলেটে বুধবার (২৪ অক্টোবর) ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশের আগে জোটের সকল নেতাদের মাজার জিয়ারতের কথা থাকলেও বাকিদের ছাড়া মঙ্গলবার রাতেই হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারত করলেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

জানা গেছে, ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে যোগ দিতে আজ মঙ্গলবার বিকেলে দলটির প্রধান নেতা গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন সিলেটে আসেন। তার সঙ্গে এসেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু।

অন্যদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বুধবার ভোর ৫টা ৫ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সিলেটের উদ্দেশে রওনা হবেন। নাগরিক ঐক্যের আহবায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাও উড়োজাহাজে সিলেট যাবেন বুধবার ভোরে।

ইতোমধ্যে সিলেটের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব। তিনি দলের কয়েকজন নেতাকে সঙ্গে নিয়ে ব্যক্তিগত গাড়িতে সিলেট যাচ্ছেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আরও কয়েকজন নেতা বুধবার ভোরে গাড়িতে সিলেট পৌঁছাবেন।

আগের সিদ্ধান্ত ছিল, জোট নেতারা বুধবার দুপুর ২টায় ডাকা সমাবেশের আগে একসঙ্গে মাজার জিয়ারতে যাবেন তারা। কিন্তু, জোটের অন্য কেন্দ্রীয় নেতারা আসার আগেই এই সিদ্ধান্ত পাল্টে আজ মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) রাতেই হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারত সেরে নেন ড. কামাল হোসেন।

রাত আটটার দিকে হযরত শাহজালাল (রহ.) এর মাজার জিয়ারতে যান ড. কামাল হোসেন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু এবং ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুরসহ স্থানীয় বিএনপির জনা কয়েক নেতা-কর্মী। ঐক্যফ্রন্টের আরেক নেতা ডা. জাফরুল্লাহ সিলেটে থাকলেও মাজার জিয়ারত কর্মসূচিতে তাকেও দেখা যায়নি।

মাজার জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল হোসেন বলেন, সমাবেশকে ঘিরে মানুষের আকাঙ্ক্ষা যাতে পূরণ হয় সেই লক্ষ্যে কাজ করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। আমরা চাচ্ছি জাতীয় ঐক্যের মাধ্যমে দেশে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হোক, যার মাধ্যমে দেশে সুশাসন নিশ্চিত হবে।

মঙ্গলবার রাতে সিলেটে বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মীকে আটক ও অবরুদ্ধ করে রাখার বিষয়ে জানতে চাইলে বিষয়টি জানা নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুলিশ এটা করার কথা নয়। যদি এটা করে থাকে তাহলে এটি অন্যায়। পুলিশকে দেখাতে হবে কোথাও আইনের ব্যত্যয় ঘটেছে কি না।

তবে, বুধবার পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি বাদ দিয়ে আগেই কেন মাজার জিয়ারত করলেন সে বিষয়ে কিছু বলতে রাজি হননি প্রবীণ এই আউনজীবী।

-একে

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট,ড. কামাল হোসেন
apps