• শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
  • ||

ডিএনসিসি প্যানেল মেয়র ওসমান গণির দাফন সম্পন্ন

প্রকাশ:  ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৫৫
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

রাজধানীর বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হলো ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্যানেল মেয়র মো. ওসমান গণিকে।

রোববার (২৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় জানাজা শেষে তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়। ফুসফুসে ক্যান্সারজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৮টায় সিঙ্গাপুরের জেনারেল হাসপাতালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

এর আগে বেলা পৌনে ১২টায় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তার মরদেহ হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আনা হয়। সেখানে তার মরদেহ গ্রহণ করেন ডিএনসিসির অপর প্যানেল মেয়র মো. জামাল মোস্তফা ও আলেয়া সারোয়ার ডেইজী এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেসবাহুল ইসলাম। এরপর বাদ জোহর প্রয়াত মেয়র মো. ওসমান গণির প্রথম জানাজা গুলশানের আজাদ মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মো. সাঈদ খোকন, সংসদ সদস্য একেএম রহমুতুল্লাহ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, প্যানেল মেয়র-২ মো. জামাল মোস্তফা, স্থানীয় সরকার বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মাহবুব হোসেন, ডিএনসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেসবাহুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রথম জানাজা শেষে মরদেহ বেলা ২টায় গুলশানে নগর ভবনের সামনে আনা হয়। এ সময় ডিএসসিসির মেয়র সাঈদ খোকন এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিবের পক্ষে শ্রদ্ধা জানানো হয়। বেলা তিনটায় মরদেহ তার বাড়ি ও নির্বাচনি এলাকা বাড্ডায় নিয়ে যাওয়া হয়। বাদ আসর দ্বিতীয় জানাজা আলাতুন্নেছা স্কুল ও কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। এতে তার আত্মীয়-স্বজন ও এলাকার সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় মাগরিবের নামাজের পর তাকে বনানী গোরস্তানে দাফন করা হয়।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের গত জুলাইয়ে ফুসফুসের ক্যান্সার ধরা পড়ার পর ওসমান গণি গত ১৪ আগস্ট চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান। শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় সিঙ্গাপুরের জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর বাদ আসর ডিএনসিসি’র নগর ভবনে তার রুহের মাগফিরাত কামনায় মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

apps