• সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

বরিশাল সিটি নির্বাচনে ৪ কাউন্সিলর প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত

প্রকাশ:  ১০ জুলাই ২০১৮, ০২:৪০
বরিশাল প্রতিনিধি
প্রিন্ট

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন (বিসিসি) নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন খেলাফত মজলিশের মেয়র প্রার্থী অধ্যাপক (অবসরপ্রাপ্ত) এ কে এম মাহবুব আলম। এছাড়া ১৭ জন সাধারণ ওয়ার্ড এবং দুইজন মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থীসহ ১৯ কাউন্সিলর প্রার্থীও মনোনয়ন প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন। এর ফলে তিনজন আওয়ামী লীগ মনোনীত সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ১ জন বিএনপি সমর্থিত সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৪ জন কাউন্সিলর নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে সোমবার (০৯ জুলাই) দুপুরে নগরীর নথুল্লাবাদ বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসে রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে স্ব-শরীরে উপস্থিত হয়ে প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করেন।

চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা অনুযায়ী মঙ্গলবার ১০ জুলাই প্রতিদ্বন্দ্বি ৬ জন মেয়র প্রার্থী, ৯৪ জন সাধারণ কাউন্সিলর এবং সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের ৩৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেবেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। এরপরই শুরু হবে আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা। আগামী ৩০ জুলাই ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

বরিশালের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. মুজিবুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘মেয়র প্রার্থী এ কে এম মাহবুব আলম লিখিত আবেদনে ব্যক্তিগত কারণে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের কথা উল্লেখ করেছেন।’

অন্যদিকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় সোমবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত মেয়র প্রার্থী মাহবুব আলম ছাড়াও সাধারণ ওয়ার্ডের ১৭ জন এবং মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত ওয়ার্ডেও দুজন কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন জমা দেন।

এভাবে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন সোমবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত ১৭ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আবেদন করায় ৩০ জন সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলরের মধ্যে ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে লিয়াকত হোসেন লাবলু, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে মোশাররফ আলী খান বাদশা এবং ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে গাজী নইমুল হোসেন লিটু বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। এরা সবাই আওয়ামী লীগ মনোনীত।

এছাড়া ১০, ১১ ও ১২নম্বর ওয়ার্ডের সমম্বয়ে গঠিত মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত ৪ নম্বর আসনের তিন প্রার্থীর মধ্যে একজনের প্রার্থিতা বাছাইয়ে বাতিল এবং আরেকজন সোমবার প্রার্থিতা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় বাকি প্রার্থী বিএনপি সমর্থিত আয়েশা তৌহিদা লুনাও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

এর আগে তফসিল ঘোষণার পর ২০ দলীয় জোটের শরিক খেলাফত মজলিস মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক একেএম মাহবুব আলমকে বিসিসি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী ঘোষণা করে মনোনয়নপত্র জমা দেন। এরপর খেলাফত মজলিসের সঙ্গে সমঝোতার জন্য বিএনপির পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেওয়া হয়। কয়েক দফা বৈঠক শেষে সমঝোতার প্রেক্ষিতে গত শনিবার রাতে মেয়র পদ থেকে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সম্মত হন খেলাফত মজলিসের মেয়র প্রার্থী একেএম মাহবুব আলম। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন।

এ ব্যাপারে খেলাফত মজলিশের মহানগর সভাপতি একেএম মাহবুব আলম বলেন, ‘কোনও ব্যক্তিগত স্বার্থ বা চাপের মুখে নয়, জোটের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশ, জাতি ও জোটের স্বার্থে ২০ দলীয় জোটের একক মেয়র প্রার্থিতা নিশ্চিত করতে বিএনপির প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ারের সমর্থনে আমার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছি।'

-একে

বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন