• সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

সংসদে স্টার জলসা-জি বাংলা বন্ধের প্রস্তাব

প্রকাশ:  ০৪ জুলাই ২০১৮, ১৯:৪৮
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

এবার সংসদেও উঠলো ভারতীয় টিভি চ্যানেল স্টার জলসা, জি বাংলা সম্প্রচার বন্ধের জোরালো দাবি। এই চ্যানেলগুলোতে যদি বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্যের সঙ্গে সাংঘর্ষিক কিছু থাকে তাহলে আইনানুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

তিনি আরো বলেন, বিদেশি চ্যানেলগুলো নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম-নীতির মাধ্যমে প্রদর্শিত হয়। এই চ্যানেল অনুমোদনের জন্য উচ্চ পর্যায়ের একটি কমিটি রয়েছে। সেই কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ছাড়পত্র দিলেই বিদেশি চ্যানেলগুলো প্রদর্শন করার অনুমতি দেওয়া হয়।

জাতীয় সংসদ অধিবেশনে বুধবার (৪ জুলাই) বিকেলে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য নূরজাহান বেগমের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

স্টার জলসা ও জি বাংলার দু’টি নাটক নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে সংসদে নূরজাহান বেগম বলেন, বিদেশি এসব চ্যানেল নতুন প্রজন্মকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। নতুন প্রজন্মের মাঝে নেতিবাচক ধারণা যাচ্ছে। এসব সমাজ বিধ্বংসী চ্যানেল বন্ধ করা হবে কি-না?

জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, তবে বাংলাদেশের শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি বা রাষ্ট্র নিরাপত্তা প্রসঙ্গে যদি কোনো ঝুঁকিপূর্ণ বিষয় থাকে বা সাংঘর্ষিক বিষয় থাকে, সেসব চ্যানেল বাংলাদেশে যেন প্রদর্শিত না হয়, সে ব্যাপারে প্রশাসনিক পদক্ষেপ নিয়ে থাকি। যে চ্যানেলগুলোর কথা বলেছেন- তাদের বিষয়বস্তু দেখেছি, দেখার পরেই অনুমোদন দিয়েছি। এই অনুমোদন দীর্ঘ দিন ধরে চলে আসছে। বিষয়টা পুনঃপরীক্ষা করে দেখতে পারি।

প্রশ্নকারীর উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী ইনু বলেন, তিনি ভারতীয় চ্যানেলের কথা শুধু বললেন। বাংলাদেশে জাপান, চীন, ইউরোপ, আমেরিকার অনেক চ্যানেল প্রদর্শিত হয়ে থাকে। সেই চ্যানেলগুলোতে যেসব জিনিস প্রদর্শিত হয়ে থাকে, সে বিষয়ে কোনো অভিযোগ নেই। তিনি জি বাংলার একটা নাটক নিয়ে অভিযোগ করলেন বা স্টার জলসার একটা নাটক নিয়ে অভিযোগ করলেন। এখানে সাধারণ মানুষের মন-মানসিকতার পরিবর্তন হয়ে যাচ্ছে। তবে আমাদের হাজার বছরের শিল্প-সংস্কৃতির ধারক বাংলার জনগণ এতো সহজে বিভ্রান্ত হওয়ার মতো নয়। আমরা দুর্বল সংস্কৃতির লোক নই। তবে বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্যের সঙ্গে সাংঘর্ষিক কোনো কিছু থাকলে অবশ্যই দেশের আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ নেবো।

/পি.এস

সংসদ,স্টার জলসা-জি বাংলা