• রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮, ৭ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

অক্টোবরে নির্বাচনকালীন সরকার: কাদের

প্রকাশ:  ২০ জুন ২০১৮, ১৩:৪০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ফাইল ছবি

আগামী অক্টোবর মাসে নির্বাচকালীন সরকার গঠন করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, নির্বাচনের সিডিউল ঘোষণার পর নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করা হবে। অক্টোবরে গঠন করার সম্ভাবনা রয়েছে বেশি।

বুধবার (২০ জুন) সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঈদ পরবর্তী পর্যালোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তখন (নির্বাচকালীন সরকার) মন্ত্রিসভা ছোট হবে, তখন ঢাউস মন্ত্রিসভার প্রয়োজন নেই। সেই সরকার শুধু রুটিন কাজ করবে। মন্ত্রীরা কোনো ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে পারবেন না।’

তিনি বলেন, ‘আগামী নির্বাচন হবে অংশগ্রহণমূলক। সে নির্বাচনে অনেক দলই অংশ নেবে। বিএনপি না এলেও সেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপি জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে যে কেন সংশয় প্রকাশ করছে তা আমার বোধগম্য নয়। কারণ, সিটি করপোরেশন নির্বাচনগুলোতে তো বিএনপি অংশ নিচ্ছে। কুমিল্লায় জিতেছে, খুলনায় অংশ নিয়েছে, গাজীপুরে অংশ নিচ্ছে। বরিশাল এবং রাজশাহীতেও অংশ নিবে। সেখানে তাদের প্রার্থী আছে। এই সমস্ত নির্বাচনে যদি তারা অংশ নিতে পারে, তবে জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে কোথায় তাদের ভয়, সে বিষয়টি আমাদের কাছে স্পষ্ট নয়।’

মন্ত্রী বলেন, ‘স্থানীয় নির্বাচনে সরকারের প্রভাব থাকলেও থাকতে পারে, তবে জাতীয় নির্বাচনে তো সরকারের কোনও প্রভাবই থাকবে না। তারপরেও নির্বাচনে অংশ নিতে তাদের কেন সংশয় সেটা তাদেরকেই জিজ্ঞাসা করুন। আর আন্দোলন করে কোনও কিছু করার শক্তি-সামর্থ্য বিএনপির নাই।’

বিএনপি আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দেশে কোনো আন্দোলন হবে না এটা জানি। কারণ, বিএনপির আন্দোলনে দেশের মানুষ সাড়া দেবে এমন কোনো বস্তুগত পরিস্থিতি দেশে বিরাজমান নেই। বিএনপিরও সাবজেক্টিভ প্রিপারেশন বা প্রস্তুতিমূলক কিছু নেই। সাবজেক্টিভ প্রিপারেশন মানে সুসংগঠনগত প্রস্তুতি, সেটাও তাদের নেই। আবার অবজেক্টিভ কন্ডিশন হলো দেশের জনগণের মুড, সেখানেও কোনো অবস্থা নেই।’

সরকার কি তবে এবারও একতরফা নির্বাচনে যাবে- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি না এলেই একতরফা নির্বাচন হয় এমন নয়। এবার বিএনপির জন্য অন্যেরা অপেক্ষা করবে না, বহু দল অংশ (নেবে)...এবার পার্টিসিপেশন অনেক বেশি। ইনক্লুসিভ নির্বাচন হবে। বিএনপিও তো বলেছে তারা আন্দোলনও করবে, নির্বাচনেরও প্রস্তুতি নিচ্ছে। তাহলে অসুবিধা কী? একতরফা কেন হবে, বাংলাদেশে কি আর কোনো দল নেই? আপনি যাবেন না বলে কি অন্যরা আসবে না?'

/এসএম

কাদের,নির্বাচনকালীন সরকার,সরকার