• বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

ফারমার্সের কর্মকর্তা বাবুল চিশতীর জামিন নিয়ে রুল

প্রকাশ:  ০৬ জুন ২০১৮, ১৫:০১
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

ফারমার্স ব্যাংকে জালিয়াতির ঘটনায় গ্রেফতার ব্যাংকটির অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মাহাবুবুল হক চিশতীর জামিন নিয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট।

বুধবার (৬ জুন) বিচারপতি মো. শওকত হোসেন ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

আমিন উদ্দিন মানিক আদেশের বিষয়ে জানান, আমরা এ মামলা শুনানি করেছি। আদালতকে আমরা বলেছি অ্যাপিয়ার করার জন্য নট টুডে করা হোক। আদালত আমাদের বিষয় আমলে নেননি।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আরও জানান, সকালে জামিন চেয়ে আবেদন করেন আসামি পক্ষের আইনজীবী। এর প্রেক্ষিতে মাহবুবুল হক চিশতীর কেন জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে ২৯ মে মঙ্গলবার বাবুল চিশতীর জামিন আবেদনের ওপর শুনানি পর ঢাকার জ্যেষ্ঠ স্পেশাল জজ কামরুল হোসেন মোল্লা জামিনের আবেদন নাকচ করে দেন। এর বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন চিশতী।

গত ১০ এপ্রিল রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে বাবুল চিশতীকে গ্রেফতার করে দুদক। এর আগে রাজধানীর গুলশান থানায় মামলা করে দুদক।

আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা প্রভাব খাটিয়ে নিজেদের ২৫টি হিসাবে ব্যাংকিং নিয়মের ব্যত্যয় ঘটিয়ে ১৬০ কোটি টাকা হস্তান্তর করেছেন।

এর আগে গত ৩ এপ্রিল ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের অডিট কমিটির প্রাক্তন চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক ও তার স্ত্রীসহ ১৭ জনের বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে দুদক।

২০১৩ সালের ৩ জুন চতুর্থ প্রজন্মের ব্যাংক হিসেবে ফারমার্স ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হয়। বর্তমানে ব্যাংকটির শাখার সংখ্যা ৫৬ ও এটিএম বুথ রয়েছে ১১টি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকটি মোট ঋণ বিতরণ করেছে ৪ হাজার ৪১৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা।

এর মধ্যে গত বছর এ ব্যাংক থেকে দেওয়া ঋণের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৮৩৯ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ফারমার্স ব্যাংকের মোট আমানত সংগ্রহের পরিমাণ ছিলো ৫ হাজার ৬৩ কোটি ৬১ লাখ টাকা। যা ২০১৫ সালে ছিলো ৩ হাজার ৪৮২ কোটি ৬৬ লাখ টাকা।

/এসএম

জামিন