• বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৫
  • ||

রোজায় নতুন রেকর্ড গড়লো পেঁয়াজ

প্রকাশ:  ২৭ মে ২০১৮, ১৯:২৮ | আপডেট : ২৭ মে ২০১৮, ১৯:৪০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

রমজান মাস শুরু হওয়ার আগেই বাড়তে শুরু করে পেঁয়াজের দাম, আর তা অব্যাহত থাকে ঈদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত! এটি এক প্রকার অলিখিত নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছিল রাজধানী ঢাকাসহ গোটা দেশজুড়েই। কিন্তু এবছর দেখা গেল তার ব্যতিক্রমী চিত্র। কয়েক দশকের প্রথা ভেঙে এবার রমজানের মধ্যেই কমেছে পেঁয়াজের দাম।

রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, রোজার এক সপ্তাহ পার হলেও পেঁয়াজের দাম বাড়েনি, বরং কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা কমেছে।

রোববার (২৭ মে) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, রামপুরা, মালিবাগ, খিলগাঁও এবং শান্তিনগরের বিভিন্ন বাজার ঘুরে এতথ্য পাওয়া গেছে।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, বাজারে দেশি-বিদেশি পেঁয়াজের সরবরাহ যথেষ্ট পরিমাণে রয়েছে। পাশাপাশি ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানির খরচও কমেছে। একারণেই পেঁয়াজের দাম কমছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, দেশি পেঁয়াজ বাজার ও মান ভেদে ৩৫ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আর আমদানি করা (ভারতীয়) পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০-৩০ টাকা কেজি। এক সপ্তাহ আগে রাজধানীর বাজারগুলোতে দেশি পেঁয়াজের কেজি ছিল ৫০-৫৫ টাকা এবং ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ছিল ৩৫-৩৮ টাকা কেজি।

মহাখালি কাঁচাবাজারের ব্যবসায়ী সোয়েব বলেন, প্রায় দশ বছর ধরে আলু-পেঁয়াজের ব্যবসা করছি। আগে কখনো দেখিনি রোজার ভেতরে পেঁয়াজের দাম কমেছে। এবারই প্রথম দেখছি। রোজা শুরুর আগে যে দেশি পেঁয়াজ ৫০ টাকা কেজি বিক্রি করেছি, এখন তা ৩৫ টাকা বিক্রি করছি।

দাম কমার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাজারে দেশি ও আমদানি করা পেঁয়াজের সরবরাহ পর্যান্ত। আড়তেও পেঁয়াজের ঘাটতি নেই। আবার ভারতও পেঁয়াজের দাম কমিয়েছে। ফলে আমদানি করা পেয়াজের দাম কমে গেছে। এর প্রভাবে দেশি পেঁয়াজের দামও কমেছে।

রামপুরায় ভ্যানে করে পেঁয়াজ বিক্রি করছিলেন শামিম। তিনি জানান, প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি করছেন ২০ টাকা। রোজার আগে একই পেঁয়াজ ৩৫ টাকা কেজি বিক্রি করেছেন। এখন আড়ৎ থেকে কম দামে পেঁয়াজ কিনতে পারছেন বলেই কম দামে বিক্রি করতে পারছেন।

কারওয়ান বাজারের ব্যবসায়ী আলফাজ বলেন, বাজারে এখন পেঁয়াজের দাম অনেক কম। রোজার আগে যে পেঁয়াজের পাল্লা (৫ কেজি) ২০০ টাকা বিক্রি করেছি, এখন তা বিক্রি করছি ১৫০ টাকায়।

এদিকে, পেঁয়াজের পাশাপাশি দাম কমেছে শশা, গাজার, বেগুনসহ প্রায় সকল সবজির। তবে বয়লার মুরগির দাম কিছুটা চড়া।

-একে

রোজা,পেঁয়াজ