• শুক্রবার, ২০ এপ্রিল ২০১৮, ৭ বৈশাখ ১৪২৫
  • ||
  • আর্কাইভ

গাজীপুরের এসপি নিয়ে আপত্তি বিএনপির

প্রকাশ:  ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:৪৫ | আপডেট : ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:৫০
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটের সাত দিন আগে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছে বিএনপি। এর পাশাপাশি গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুনুর রশীদের বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে তাকে অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে দলটি।

সেই সঙ্গে দুই মহানগরে ভোট গ্রহণে পরীক্ষামূলকভাবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম ব্যবহারের যে সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশন নিয়েছে, তা থেকে সরে আসারও দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

মঙ্গলবার আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার সঙ্গে সাক্ষাতে গিয়ে তিনটি দাবি জানিয়ে এসেছেন বিএনপি নেতারা।

গাজীপুরের এসপি হারুনুর রশীদের বিষয়ে বিএনপির আপত্তি পুরনো। ২০১১ সালে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউয়ে সে সময়ের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ জয়নাল আবদীন ফারুককে পিটুনির ঘটনায় হারুন সেখানে ছিলেন। সে সময় তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশের তেজগাঁও অঞ্চলের সহকারী উপকমিশনার ছিলেন।

ওই ঘটনার কিছুদিন পর হারুনের পদোন্নতি হয় এবং পরে তিনি গাজীপুরের পুলিশ সুপার হিসেবে নিয়োগ পান। কোনো জেলায় এসপি হিসেবে এত বছর থাকা নিয়ে প্রশ্ন আছে বিএনপির।

দুই বছর আগে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সময় গাজীপুরের শ্রীপুরে এক ইউপি সদস্য প্রার্থীকে কুপিয়ে হত্যা এবং নির্বাচন সংক্রান্ত নানা অভিযোগের পর হারুনকে ২০১৬ সালের ২২ এপ্রিল প্রত্যাহার করে নির্বাচন কমিশন। পরে তাকে পুনর্বহাল করা হয়।

এসপি হারুনকে পক্ষপাতদুষ্ট মনে করে বিএনপি। তাদের ধারণা, তিনি দায়িত্বে থাকলে ভোটের আগে বিএনপির নেতা-কর্মীদের নানাভাবে হয়রানি করবেন। এ কারণে তাকে সরিয়ে দেয়ার দাবি তুলছেন তারা।