• রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮, ৪ ভাদ্র ১৪২৫
  • ||

‘কারাবাসেই খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি’

প্রকাশ:  ০৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:৩৩ | আপডেট : ০৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৪:৫৭
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিন্ট

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ অভিযোগ করে বলেছেন, নির্জন কারাগারে বন্দিজীবনের কারণেই চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছে এবং আর এর দায় সরকারকেই নিতে হবে।

শনিবার (৭ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিএসএমএমইউতে নিয়ে আসা হয়। ওইসময় সেখানে উপস্থিত ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে নির্জন কারাগারে রাখার ফলে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। তাকে যে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে সেটি পর্যাপ্ত নয়। ‘খালেদা জিয়াকে যে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে সেটা সরকারের নিয়ন্ত্রণে। আমরা চাই, খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্তি দিয়ে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে কিন্তু সরকার সেটা দিচ্ছে না।’

মওদুদ আহমদ আরো বলেন, ‘হঠাৎ করে শুনলাম নেত্রীকে পরীক্ষা করানোর জন্য পিজি হাসপাতালে আনা হয়েছে। খুব সম্ভবত তার এক্স-রে ও রক্ত পরীক্ষা করানো হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সরকার একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছিল। এই বোর্ড এক্স-রে এবং রক্ত পরীক্ষার সুপারিশ করেছে।’

সরকারী চিকিৎসার আস্থা নেই জানিয়ে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ দিতে হবে।

মওদুদ বলেন,, এত দিন সরকার বলেছে খালেদা জিয়া সুস্থ আছেন। কিন্তু আজ প্রমাণ হলো, খালেদা জিয়া অসুস্থ। আমরা এত দিন বলে আসছিলাম খালেদা জিয়া অসুস্থ কিন্তু সরকার সে বিষয়ে কোনো মনযোগ দেয়নি।’

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে খালেদা জিয়াকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য রাজধানীর শাহবাগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) নিয়ে আসা হয়। দুই ঘণ্টার বেশি স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর দুপুর দেড়টার দিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে ফের পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দীন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ সময় বিএনপি নেতা ও খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের মধ্যে কেউ কেউ হাসপাতালে আসেন। তাদের মধ্যে ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমদ তালুকদার প্রমুখ।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হয়। এরপর পুরান ঢাকার পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারকে বিশেষ কারাগার ঘোষণা দিয়ে খালেদা জিয়াকে সেখানে রাখা হয়।

/এজেড