• বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ৩০ কার্তিক ১৪২৫
  • ||

‘কর্মই জীবন, জীবন কর্মেরই জন্যে’

প্রকাশ:  ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:২৮
বিনোদন প্রতিবেদক
প্রিন্ট
ছবিঃ মানস মেহেদী

‘ঢাকা লিট ফেস্ট’ শুরু হয়েছে বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) থেকে। তিনদিনের এই উৎসব শেষ হবে আগামীকাল শনিবার। আজ উৎসবের দ্বিতীয় দিনে ‘ব্রেকিং ব্যাড’ শিরোনামের অধিবেশনে আব্দুল করিম সাহিত্য বিশারদ অডিটোরিয়ামে উপস্থিত ছিলেন সাদাফ সাজের সঙ্গে ছিলেন বলিউড অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা এবং অভিনেত্রী নির্মাতা নন্দিতা দাস।

অধিবেশনে নারীর ক্ষমতায়ন, ভূমিকা, বানিজ্যিকিকরণ, গ্ল্যামার, চলচ্চিত্রে নারীর ব্যবহার ও সমাজের দৃষ্টিভঙ্গীসহ নানা ইস্যু নিয়ে প্রাণবন্ত আলোচনা হয়। এসময় বাংলা একাডেমির ‘আব্দুল করিম সাহিত্য বিশারদ’ মিলনায়তনটি দর্শক শ্রোতায় কানায় কানায় পরিপূর্ণ ছিল। অনেককেই সিট না পেয়ে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে আলোচনা শুনতে দেখা যায়।

আলোচনা শেষে প্রশ্নোত্তর পর্বে দর্শকদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেন মনীষা ও নন্দিতা। সিনেমার ‘আইটেম সং’, নারী-পুরুষের ব্যবধান ইত্যাদি নানা বিষয়ে প্রশ্নের পাশাপাশি তাঁদের ব্যক্তিজীবন সংশ্লিষ্ট প্রশ্নও করেন দর্শকেরা।

নন্দিতা দাস একই সঙ্গে একজন অভিনেত্রী, নির্মাতা এবং একজন মা। স্বভাবতই তাকে ভীষণ ব্যস্ত থাকতে হয়। এই ব্যস্ততাকে তিনি কীভাবে জীবনের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ্য করে তোলেন? এরকমই এক প্রশ্নের উত্তরে নন্দিতা দাস বলেন, ‘লাইফ ইজ ওয়ার্ক এন্ড ওয়ার্ক ইজ লাইফ’। অর্থাৎ, কর্মই জীবন আর জীবন কর্মেরই জন্যে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে একই মিলনায়তনে নির্মাতা নন্দিতা দাসের হিন্দি ছবি ‘মান্টো’র বাংলাদেশ প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। সিনেমাটি দেখতে গতকাল ছিল উপচে পড়া ভিড়। ছবিতে উর্দু সাহিত্যি সাদাত হাসান মান্টো’র জীবনের চারটি বছরের চিত্রায়ণ হয়েছে। এতে উঠে এসেছে কৃষণ চন্দর, ইসমত চুঘতাই, অভিনেতা অশোক কুমার ও শ্যাম চাড্ডার সঙ্গে তাঁর সখ্যতার কথা। দাঙ্গার কারণে মান্টোর পাকিস্তানে চলে যাওয়া। পাকিস্তানে ‘ঠান্ডা গোস্ত’ গল্পের জন্য অশ্লীলতার মামলা। উঠে এসেছে তাঁর পারিবারিক জীবন, স্ত্রী সাফিয়া ও অর্থসংকটের বয়ান। দেশ ভাগের ফলে মানসিক যাতনা, অত্যধিক মদ্যপান, এবং তাঁর লেখক স্বত্বার স্বাধীনতার জন্য তাঁর ক্লান্তিহীন লড়াইয়ের কথা।

ছবিটি গত কান চলচ্চিত্র উৎসবের সম্মানজনক ‘আঁ সার্তে রিগার’ বিভাগের জন্য পেয়েছিল আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন।

/ই.কা/এ আই

apps